Shadow

ইন্টারনেট

ইন্টারনেট

ইন্টারনেট
ইন্টারনেট

সভ্যতার  বিকাশ যেমন হয়েছে । ঠিক তেমনি পৃথিবীও অনেক পরিবর্তন হয়েছে । একটা সময় মানুষ পায়ে হেঁটে পথ পাড়ি দিত ।

কাঁচা মাংস খেয়ে জীবন ধারণ করতো সেই মানুষই কালের পথ ধরে আজ অগ্রতির দিকে পা বাড়ীয়েছে । যে মানুষ পায়ে হেঁট পথ

পাড়ই দিত সেই মানুষ আজ চন্দ্র পাড়ি জমিয়েছে । যে মানুষ এক সময় যোগাযোগের মাধ্যম হিসাবে চিঠি  ব্যবহার করতো সেই

মানুষ আজ নিমিষেই এক স্থান থেকে অন্য স্থানে নিজের অবস্থান জানান দিতে পারে । আধুনিক বিশ্বকে আরো আধুনিকায়ন

করে দিয়েছে ইন্টারনেট । ইন্টারনেত ছাড়া আধুনিক বিশ্ব কল্পনা করায় যায় না । ইন্টারনেট পরো বিশ্বকে হাতের মুটোই এনে

দিয়েছে । আমরা একমুহুর্তে পৃথিবীর এক প্রান্ত থেকে অপর প্রান্তের খোঁজ নিমিষেই পেয়ে যাচ্ছি ।  নিম্মে ইন্টারনেটের কিছু

ব্যবহার দেখানো হলোঃ-

ইন্টারনেট

ইন্টারনেট
ইন্টারনেট

কৃষি ক্ষেত্রেঃ একটা সময় মানুষ খাদ্যের অভাবে মারা যেত । পর্যাপ্ত জমি থাকার পরেও ভালো কোন ফলন পেত না । ফসলি

জমিতে কোন সময় কোন ফসল চাষ করতে হবে এই জ্ঞান না থাকার কারণে সব জমি পরে থাকতো । কিন্তু বর্তমানে

ইন্টারনেটের কারণে কৃষকেরা তাদের প্রয়োজনীয় তথ্য গুগোল করে যেনে নিতে পারছে । দেশী বিদেশী কৃষিবিদের পরামর্শ নিয়ে

প্রয়োজনীয় কিটনাশক ব্যবহারের মধ্যদিয়ে কম জমিতেই বেশী ফলন উৎপাদন করতে সক্ষম হয়েছে ।

চিকিৎসা ক্ষেতেঃ একটা সময় ছিলো যখন মানুষ তার রোগ হইলে ডাক্তারের কাছে যেত । আর এখন ইন্টারনেটের কারণে ডাক্তার

মানুষের ঘরে ঘরে । ই- মেডিসিন ব্যবস্থার কারণে মানুষ তার প্রয়োজনে ঘরে বসেই ডাক্তারের পরামর্শ নিতে পারেন ।

শিক্ষা ক্ষেত্রে ঃ পূর্বে মানুষ একটা নির্দিষ্ট ক্লাসে বসে শিক্ষকের কথা শুনত । ফলস্বরূপ অনেক কিছুই জানার বাহিরই থেকে যেত

।  কিন্তু বর্তমানে শিক্ষার্থী নিজ কক্ষের পাশাপাশি বিশ্বের নামি দামি শিক্ষা প্রতিষ্টানের পাঠ গ্রহণ করতে পারে। ঘরে বসেই নিজের

প্রয়োজনীয় তথ্য গুগুল থেকে নিতে পারে । করোনা মতন  পরিস্থিতিতে সারা বিশ্ব যেখানে থক্মে গিয়েছিলো সেখানে শিক্ষা ব্যবস্থা

থেকে ছিলো না। চলেছে অনলাইনে পাঠ দান । সবটাই সম্ভব হয়েছে ইন্টার নেটের কল্যাণে ।

ইন্টারনেট

ইন্টারনেট ব্যবহারের যেমন ভালো দিক আছে তেমন ক্ষতিকর দিকও রয়েছে । নিম্মে কিছু ক্ষতিকর দিক তুলে ধরা হলোঃ-

শারীক অসুস্থতাঃ দীর্ঘক্ষণ ইন্টারনেট ব্যবহারের ফলে মাথা ব্যথা , ব্রেইন ক্যান্সারের মতন রোগ হতে পারে । তাছাড়া দীর্ঘ সময়

ধরে বসে কাজ করলে কোমড় ব্যথা বা শরীরের নানা অঙ্গ অবশ হয়ে যেতে পারে ।

সামাজিকতা থেকে বিছিন্নঃ যারা ইন্টারনেটে আশক্ত থাকে তারা সাধারণত সমাজের মানুষের সাথে মিশতে জানে না। সমাজের

মানুষ থেকে দূরে অবস্থান করে। ফলে তাদের মাঝে থেকে সামাজিকতা হারিয়ে যায় ।

ব্যক্তিগত তথ্য ফাঁসঃ অনেক সময় ইন্টারনেটের মধ্যদিয়ে হ্যাকাররা একটি দেশের বা প্রতিষ্টানের তথ্য হাতিয়ে নিয়ে সেই দেশ বা

প্রতিষ্টানকে বিপদে ঠেলে দেয় ।

ইন্টারনেট

ইন্টারনেট
ইন্টারনেট

তাছাড়াও অধিক নেটের আসক্তি শিক্ষার্থীদের পড়াশুনা থেকে দূরে সরে নিয়ে যাচ্ছে । শিশুরা ভিডিও গেমসের প্রতি আসক্ত

হওয়ার কারণে তাদের শারীরিক বিকাশ ব্যহত হচ্ছে । অনেক সময় ব্যক্তিগত তথ্য ফাঁস হয়ে যাওয়ার কারণে অনেকেই নানা

বিপদের মাঝে পড়ছে ।

প্রতিটা বিষয়ের ভালো ও খারাপ দুইটা দিকই থাকে । ইন্টারনেট তার ব্যতিক্রম নয় । আধুনিক বিশ্বের সাথে তাল মিলিয়ে চলতে

গেলে ইন্টারনেটের বিকল্প নেই।নিজের দক্ষতা বাড়াতে এবং নিজের জ্ঞানের পরিধি বাড়াইতে ইন্টারনেটি আমাদের একমাত্র

অবল্বন। তবে এটির যেহেতু খারাপ দিক রয়েছে । এবং সেগুলো অনুসরণ করলে আমাদের ক্ষতি হতে পারে ,তাই  আমাদের

উচিত ভালো দিকটা কাজে লাগিয়ে এগিয়ে যাওয়া । এবং এর নেতিবাচক প্রভাবগুলির প্রতি সচেতন থাকা ।  এবং কেউ যাতে এর

অপব্যবহার করতে না পারে সেই দিকে খেয়াল রাখা । এবং কেউ যদি এর অপব্যবহারের মধ্য দিয়ে কারো ক্ষতির চেষ্টা করে তবে

তাকে আইনের আওয়াতায় আনা।

তাছাড়াও অধিক নেটের আসক্তি শিক্ষার্থীদের পড়াশুনা থেকে দূরে সরে নিয়ে যাচ্ছে । শিশুরা ভিডিও গেমসের প্রতি আসক্ত

হওয়ার কারণে তাদের শারীরিক বিকাশ ব্যহত হচ্ছে । অনেক সময় ব্যক্তিগত তথ্য ফাঁস হয়ে যাওয়ার কারণে অনেকেই নানা

বিপদের মাঝে পড়ছে ।

প্রতিটা বিষয়ের ভালো ও খারাপ দুইটা দিকই থাকে । ইন্টারনেট তার ব্যতিক্রম নয় । আধুনিক বিশ্বের সাথে তাল মিলিয়ে চলতে

গেলে ইন্টারনেটের বিকল্প নেই।নিজের দক্ষতা বাড়াতে এবং নিজের জ্ঞানের পরিধি বাড়াইতে ইন্টারনেটি আমাদের একমাত্র

অবল্বন। তবে এটির যেহেতু খারাপ দিক রয়েছে । এবং সেগুলো অনুসরণ করলে আমাদের ক্ষতি হতে পারে ,তাই  আমাদের

উচিত ভালো দিকটা কাজে লাগিয়ে এগিয়ে যাওয়া । এবং এর নেতিবাচক প্রভাবগুলির প্রতি সচেতন থাকা ।  এবং কেউ যাতে এর

অপব্যবহার করতে না পারে সেই দিকে খেয়াল রাখা । এবং কেউ যদি এর অপব্যবহারের মধ্য দিয়ে কারো ক্ষতির চেষ্টা করে তবে

তাকে আইনের আওয়াতায় আনা।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published.